মুরগির রোগ ফাউল কলেরা - আধুনিক কৃষি মেশিনারি বিশ্বস্ত প্রতিষ্ঠান
ফাউল কলেরা

মুরগির রোগ ফাউল কলেরা

মুরগির রোগ ফাউল কলেরা

ফাউল কলেরা মুরগির একটি ছোয়াচে রোগ । এটি এ্কটি ব্যাকটেরিয়াজনিত রোগ ।এই রোগে মৃত্যুর হার প্রায় ৫০-৭৫% পযন্ত হতে পারে। এতে খামার বেশ আথিক ক্ষতি সম্মুখীন হয়।

ফাউল কলেরা কেন হয়?

ফাউল কলেরা Pasteurella matocida   নামক ব্যাক্টেরিয়া দ্বারা হয়ে থাকে ।

 

ফাউল কলেরা সম্পকে কিছু তথ্যঃ

১।  ২-৪ মাস বয়সের মুরগিতে এই রোগ দেখা যায়।

২।অতিরিক্ত গরম পড়লে মুরগি এই রোগে বেশি আক্রান্ত হয়।

৩।এছাড়া পরিবেশে বেশি পরিমান আদ্রতা থাকলে ও এই রোগ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে ।

 

ফাউল কলেরা রোগের লক্ষণঃ

১।জ্বর থাকবে।

২।খাদ্য গ্রহনে অনিহা থাকবে।

৩।শ্বাস নিতে কষ্ট হবে।

৪।ডিম উৎপাদন কমে যাবে।

৫।মাথার ঝুটি ও গলার ফুল ফুলে যাবে।

৬।মুরগী দুবল হয়ে যাবে।

৭।সভুজাভ,বা হলুদাভ ডায়রিয়া হতে পারে,

৮।মুখ দিয়ে লালা পড়বে

৯।মাথা নিচের দিকে দিয়ে ঝিমাবে।

 

ফাউল কলেরা রোগের পোস্ট মটেম লক্ষন ঃ

 

খালি চোখে যা যা দেখা যায়ঃ

১।হালকা রক্ত বিন্দু পাওয়া যাবে হৃদপিন্ড, গিলা , উদরের চবিতে।

২।যকৃ্ত কাল হয়ে যাবে, এবং শতকরা প্রায় ৮০% মুরগিতে যকৃ্তে সাদা স্পট পাওয়া যাবে।

৩।ওভা গুলো ভাঙ্গা, ভাঙ্গা হয়ে যাবে।

৪। আন্ত্রিক ক্ষত দেখা যাবে।

৫।হৃদপিন্ডে অসংখ্য রক্তের ফোটা পাওয়া যাবে।

 

 

চিকিৎসাঃ

১।যেহেতু ব্যাক্টেরিয়াজনিত রোগ তাই যে কোন একটি ভালো এন্টিবায়োটিক দিতে হবে, সে হিসাবে , ciprofloxacin, gentamycin, doxacycline ৩-৫ দিন দেয়া যেতে পারে।

২। এছাড়া যেহেতু পায়খানার সমস্যা আছে তাই একটি সালফার গ্রুপের ঔষধ দিতে হবে।এ ক্ষেত্রে Ati vet suspension/ Sulphatrim powder/S-trim vet ৩-৫ দিন এন্টিবায়োটিক  এর সাথে দিতে হবে,

৩।গরম বেশি পড়লে ভিটামিন সি / লেবুর রস দেয়া যেতে পারে।

 

 ফাউল কলেরা কিভাবে প্রতিরোধ করবেন?

 

১।ফাউল কলেরা ভ্যাক্সিন দিতে হবে।

২।খামারে জৈব নিরাপত্তা ভালোভাবে নিশ্চিত করতে হবে।

৩। খামারে ইদুরের উপদ্রুপ সম্পুনরুপে বন্ধ করতে হবে।

৪।সব সময় একজন ভাল রেজিস্টাড ভেটরিনারিয়ানের পরামশ নিতে হবে।

SUNDARBANFARM

%d bloggers like this: